সাউথ সন্দ্বীপ হাই স্কুলের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

South Sandwip High School Reunion 2018

সাউথ সন্দ্বীপ হাই স্কুলের পুনর্মিলনী-২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার পারকিরচর বীচের লুসাই পার্কে অনুষ্ঠিত পুনর্মিলনীতে অংশ নিয়েছেন ঐতিহ্যবাহী স্কুলটির প্রায় দেড় হাজার সাবেক শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবারের সদস্যরা।

স্কুলে সাবেক শিক্ষার্থীদের ফেসবুক গ্রুপ প্রথমবারের মতো এই মিলনমেলার আয়োজন করেছে। সকাল থেকে বিভিন্ন কার্যক্রম, খেলাধূলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কুইজ প্রতিযোগিতা, স্মৃতিচারণের মাধ্যমে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানটি শেষ হয়।

 

চট্টগ্রামের দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপের প্রাচীণ এই বিদ্যাপীঠের পুনর্মিলনীর বিষয়ে অনুষ্ঠান পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী মজিবুর রহমান বলেন, ১৯৪৬ সালে প্রতিষ্ঠিত সাউথ সন্দ্বীপ হাই স্কুল দ্বীপাঞ্চলের মানুষের মধ্যে শিক্ষার আলো পৌঁছে দিতে অনন্য ভূমিকা পালন করেছে। এই স্কুলের শিক্ষার্থীরা দেশ বিদেশে কর্মক্ষেত্রে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেও দীর্ঘদিন ধরে বিচ্ছিন্ন ছিল সহপাঠী, প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা। এই আয়োজনের মাধ্যমে প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা যুক্ত হয়ে স্কুলের উন্নয়নে কাজ করতে সচেষ্ট হবে।

পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী মজিবুর রহমান বলেন, অনুষ্ঠানের সার্বিক কার্যক্রম বিভিন্ন ব্যাচের সদস্যরা নিরলসভাবে কাজ করেছেন। তৌহিদুল মাওলা তনু (৮৮ ব্যাচ), কামরুল আনোয়ার (৮৭ ব্যাচ),গাজী হানীপ(৯০ব্যাচ), শাহেদ সারোয়ার শামীম (৮৯ ব্যাচ) এবং ব্যাচ ৯৫ এর সকল সদস্যরা অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতা করেছেন।

Image may contain: 5 people, crowd and close-up

২০০০ সালের পরবর্তী ব্যাচের বিভিন্ন শিক্ষার্থীরা পুনর্মিলনীতে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে পুনর্মিলনীকে প্রাণবন্ত করেছে। ৮৮ ব্যাচের যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী  মো. নূরচ্ছাপা, একেএইচ গ্রুপের পরিচালক জান্নাতুল ফেরদৌস সুরমা (৮৪ ব্যাচ)। ৯৮ ব্যাচের সহযোগিতায় প্রকাশিত ‘প্রিয় স্কুল’ প্রকাশনাটি পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানকে কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছেন মনে করেন তিনি।

সম্প্রতি সাউথ সন্দ্বীপ হাই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি গ্রুপের মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু করে। এরই মধ্যে গ্রুপটির সদস্য সংখ্যা ৪ হাজার ছাড়িয়ে যায়। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে গ্রুপের এডমিন ও নেতৃত্বস্থানীয়দের সিদ্ধান্তের মাধ্যমে সদস্যদের উপস্থিতিতে একটি বৃহৎ আঙ্গিকে পুনর্মিলনী আয়োজনের সিদ্ধান্ত হয়।

প্রথমবারের মতো আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পরবর্তীতে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের একটি শক্তিশালী প্ল্যাটফরম তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা। অনুষ্ঠানে সন্দ্বীপের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ছাড়াও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply