পতেঙ্গায় বলাৎকারে বাধা দেওয়ায় ইটের আঘাতে শিশু হত্যা !!

নগরীর পতেঙ্গা থানার খালপাড় আহমদপাড়া বার্মা কলোনিতে বলৎকারে বাধা দেওয়ায় মাথার ইটের আঘাত করে মো. সোহাগ (৮) নামে আট বছরের এক শিশুকে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ মার্চ) রাতে এ ঘটনা ঘটে।

এ অভিযোগে আসামি রিকশাচালক মো. ইমন হোসেনকে (২০) গ্রেফতার করেছে বলে জানিয়েছে পতেঙ্গা থানা পুলিশ।

সোহাগের বাবাও রিকশাচালক। মা তৈরি পোশাককারখানার কর্মী। তাদের বাড়ি ভোলার চরফ্যাশনে। আসামি ইমনের বাড়িও একই এলাকায়।

পতেঙ্গা থানার ওসি আবুল কাসেম ভূঁইয়া বলেন,‘রিকশাচালক ইমন শিশু সোহাগকে বড়ই খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে গিয়ে বলৎকারের (যৌন হয়রানি) চেষ্টা করলে সোহাগ চিৎকার করে। এসময় সোহাগকে চিৎকারে বাধা দিয়ে না পেরে পাশে থাকা ইটের টুকরা দিয়ে সোহাগের মাথায় আঘাত করে ইমন। এতে ঘটনাস্থলেই শিশু সোহাগের মৃত্যু হয়।’

খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে রিকশাচালক ইমনকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় সোহাগের বাবা বাদি হয়ে হত্যামামলা দায়ের করেছেন বলে জানান ওসি।

Leave a Reply