‘রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিশ্ববাসীকে এগিয়ে আসতে হবে’

পোপ ফ্রান্সিস তার এশিয়া সফরে বাংলাদেশে প্রথমবার 'রোহিঙ্গা' শব্দটি উচ্চারণ করলেন।

পোপ ফ্রান্সিস তার এশিয়া সফরে বাংলাদেশে প্রথমবার ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি উচ্চারণ করলেন।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিশ্ববাসীকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানালেন সফররত ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস।

আজ বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের দেওয়া এক নাগরিক সংবর্ধনায় পোপ এই আহ্বান জানান।

পোপ ফ্রান্সিস বলেন, ‘এই চরম সংকট থেকে উত্তরণের জন্যে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসতে হবে। দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। শরণার্থী শিবিরগুলোতে যারা গাদাগাদি করে আশ্রয় নিয়েছেন তাদের এমন চরম সংকটের কথা ভুলে যাওয়া যাবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘গণ-বিতাড়িত হওয়া এই মানুষগুলোর দুঃখের পেছনে যে রাজনৈতিক কারণ রয়েছে এর সমাধান করতে হবে। পাশাপাশি প্রতিবেশী বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া এই মানুষগুলো যে মানবিক বিপর্যয়ের মধ্যে রয়েছে তা দূর করতে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া খুবই জরুরি।’

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ বাসভূমে ফেরাতে এবং এ সংকট সমাধানে মিয়ানমার সরকারের ওপর অব্যাহত চাপ প্রয়োগে পোপ ফ্রান্সিসের সহায়তা কামনা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে বিশ্বের ১২০ কোটি ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের নেতা পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে এক একান্ত বৈঠকে রাষ্ট্রপতি এ সহায়তা চান।

রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন জানান, বৈঠকে রাষ্ট্রপতি রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যাতে মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ প্রয়োগ করে সেক্ষেত্রে পোপের সক্রিয় সহায়তা কামনা করেন।

রোহিঙ্গার সংকট প্রশ্নে পোপের অবস্থানের প্রশংসা করে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন যে, রোহিঙ্গাদের তাদের পিতৃভূমিতে নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসন নিশ্চিতকরণে পোপ ফ্রান্সিস খুবই ইতিবাচক ভূমিকা পালন করবেন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে ভ্যাটিকান সিটির আন্তরিক সমর্থনের কথা স্মরণ করে বলেন, ১৯৭৩ সালে ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশে ভ্যাটিকান সিটির দূতাবাস খোলার পর থেকে বাংলাদেশ ও ভ্যাটিকান সিটির সম্পর্ক ধীরে ধীরে জোরদার হয়েছে।

বাংলাদেশকে একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি দেশ উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘ধর্ম যার যার কিন্তু এর উৎসবগুলো সবার।’

এর আগে সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ পোপ ফ্রান্সিসকে বঙ্গভবনে স্বাগত জানান।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৩ মার্চ ভ্যাটিকানের ২৬৬তম পোপ নির্বাচিত হন ফ্রান্সিস। রোমের বিশপ হিসেবে তিনি বিশ্বব্যাপী ক্যাথলিক চার্চ এবং সার্বভৌম ভ্যাটিকান সিটির প্রধান।

Leave a Reply