৬ মাসের মধ্যে বিদায় নিতে হবে তেরেসা মে-কে’

Hidi Allen . M.Pবৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’কে আগামী ৬ মাসের মধ্যে বিদায় নিতে হবে। এমনটা বিশ্বাস করেন তেরেসা মে’র দল কনজারভেটিভ দলের এমপি হিদি অ্যালেন। বৃহস্পতিবার নির্বাচনে পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর পর প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে মুখ খুললেন এই এমপি। তিনি সাউথ কেমব্রিজশায়ার থেকে নির্বাচিত। বলেছেন, তিনি মনে করেন না যে, তেরেসা মে ‘অনির্দিষ্টকাল’ প্রধানমন্ত্রী থাকবেন।

তার প্রধানমন্ত্রিত্ব হবে ব্রেক্সিট সমঝোতার জন্য অন্তর্বর্তীকালীন। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। হিদি অ্যালেন বলেছেন, আমাদের দেশের ইতিহাসে এটা যদি অন্য কোনো সময়ের অন্য কোনো নির্বাচন হতো তাহলে আপনাকে বলতে হতোÑ হ্যাঁ, প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত। কিন্তু অবশ্যই এখন প্রেক্ষাপট ভিন্ন। কারণ, আমরা ব্রেক্সিট আলোচনা শুরুর পর্যায়ে রয়েছি। তাই এ ইস্যুটি পুরো বিষয়কে জটিল করে তুলেছে। আমাদের এই মুহূর্তে একজন প্রধানমন্ত্রী থাকা প্রয়োজন।

কনজারভেটিভ দলের পিছনের সারির এমপি মিসেস অ্যালেন। দলীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারানোর জন্য তিনি দায়ী করেছেন প্রচারণাকে। বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী হয়তো ভেবেছিলেন তিনি আরো বড় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবেন। কিন্তু তার প্রচারণা চলেছে খুব বাজেভাবে। তিনি মনে করেন আগাম নির্বাচন দেয়া কোনো ভুল বা খারাপ কিছু হয়েছে। মিসেস অ্যালেন প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’র একজন তুখোড় সমালোচক। বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী ডিইউপির সমর্থন নিয়ে মাইনরিটি সরকার গঠনের কথা বলেছেন।

কিন্তু দলের খারাপ ফলের জন্য তিনি কোনো দুঃখ প্রকাশ করেন নি। মিসেস অ্যালেন এই অভিযোগ আনার পরেই প্রধানমন্ত্রী বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে পরাজিত এমপিদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। মিসেস অ্যালেন বলেন, ব্যক্তিগতভাবে আমি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছি। আমি মনে করি আমরা চমৎকার, অতি চমৎকার কিছু এমপিকে হারিয়েছি। তাদের অনেকেই ছিলেন দায়িত্বশীল। এই পরাজয়ে আপনি শুদু মাথা নিচু করে রাখতে পারেন না। তাই মিসেস অ্যালেন বলেন, আমি একটি পূর্ণাঙ্গ নতুন কনজারভেটিভ পাটি দেখতে চাই। এমন কনজারভেটিভ পার্টি দেখতে চাই যাদের মাঝে অনুরণন তুলবে জনগণের ইচ্ছা।

Leave a Reply