জলাবদ্ধতা নিরসনে চসিকের ৫ হাজার কোটি টাকার মেগা প্রকল্প

চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতার স্থায়ী নিরসনে ৫ হাজার কোটি টাকা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। সাময়িক প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে জলাবদ্ধতা দূর হবে না। ইতোমধ্যে এ নগরীর জলাবদ্ধতা ও বন্যা নিয়ন্ত্রণে চীনের একটি প্রতিষ্ঠান প্রায় দশ মাস ধরে জরিপ চালিয়েছে। রোববার কর্পোরেশনের সম্মেলন কক্ষে প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

এ সময় মেয়র বলেন, এবার বর্ষা মওসুম শুরুর আগে কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে নগরীর বিভিন্ন সড়ক ও নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যায়। তিনি দাবি করেন, জলাবদ্ধতার পরিস্থিতি শুধু এ আমলে হয়নি। তিনি যখন দায়িত্ব গ্রহণ করেন ওই সময় আরও ভয়াবহ ছিল।

তিনি উল্লেখ করেন, নদী ও শহর এলাকার ভূমির উচ্চতা সমান হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি জোয়ারের পানি শহরে প্রবেশ করছে। এছাড়া নালা-নর্দমা ও খালে আবর্জনা ফেলায় জলাবদ্ধতার মূল কারণ বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ক্ষমতা নেয়ার আগে থেকেই জলাবদ্ধতার প্রকট রূপ নিয়েছে। জায়গা অধিগ্রহণ ছাড়া চিটাগং ফ্ল্যাড কন্ট্রেল এ্যান্ড ওয়াটার লগিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম বাস্তবায়ন করলে জলাবদ্ধতা নিরসন স্থায়ীভাবে হবে বলে উল্লেখ করেন। মেয়র বলেন, ৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে গত দশমাসে পাওয়ার চায়না নামের একটি প্রতিষ্ঠান ফিজিবিলিটি স্টাডি সম্পন্ন করেছে।

এ পরিকল্পনাটি সরকার অনুমোদন দিলে আগামী তিন বছরে তা বাস্তবায়ন করা যাবে। তিনি সুনির্দিষ্টভাবে বলেন, এছাড়া এর কোন বিকল্প নেই। এ প্রকল্পের জন্য যে ব্যয় ধরা হয়েছে তা ভূমি অধিগ্রহণ খাত ব্যতীত।

Leave a Reply