গণতন্ত্র ও উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার: ট্রাম্প


গণতন্ত্র ও উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার: ট্রাম্প

আইনিউজ১৬ রিপোর্ট :: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড জে. ট্রাম্প বাংলাদেশের ৪৭তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে আজ পৃথক শুভেচ্ছা বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘গণতন্ত্র, উন্নয়ন, বাণিজ্য ও বিনিয়োগে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার।’

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে পাঠানো শুভেচ্ছা বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আপনাকে এবং বাংলাদেশের জনগণকে অভিনন্দন জানাতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত.. যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের পক্ষ থেকেও আমি শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বন্ধুত্বের সম্পর্ক আরো বলিষ্ঠ হয়েছে এবং গত চার দশকের চেয়ে আরো গভীর হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের দুই দেশ গণতন্ত্র, উন্নয়ন, বাণিজ্য ও বিনিয়োগ এবং সন্ত্রাসবাদ বিরোধী লড়াইসহ বৈশ্বিক ও আঞ্চলিক নিরাপত্তার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার।

ট্রাম্প বলেন, উভয় দেশের শান্তি ও সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে তিনি যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্কের আরো অগ্রগতির দিকে তাকিয়ে আছেন।

তিনি বলেন, ‘এই বিশেষ দিনে আমি পুনরায় আপনাকে এবং সকল বাংলাদেশীকে শুভেচ্ছা জানাই।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পাঠানো পৃথক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন, ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আমেরিকার জনগণের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানাতে পেরে তিনি সম্মানিত হয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আপনার দেশের মহান ঐতিহ্য উদযাপনে আমিও আপনার সঙ্গে অংশ নিচ্ছি। গত চার দশকে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অংশীদারিত্ব দৃঢ় ও গভীর হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশ সন্ত্রাস দমনসহ গণতন্ত্র, উন্নয়ন, বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক নিরাপত্তার বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার।’

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বলেন, ইউএস ও বাংলাদেশ একটি অধিকতর নিরাপদ ও আরো শান্তিময় বিশ্ব নিশ্চিতের অঙ্গীকারের পাশাপাশি অভিন্ন মূল্যবোধ ধারণ করে।

তিনি আরো বলেন, ‘আমি আমাদের উভয় দেশের অব্যাহত শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করছি এবং আমি এই গুরুত্বপূর্ণ দিনে আপনাদের সকলকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’

Leave a Reply