ভাষাশহীদের শ্রদ্ধা জানালেন খালেদা জিয়া


ভাষাশহীদের শ্রদ্ধা জানালেন খালেদা জিয়া Khaleda Zia at Language Monument

আইনিউজ১৬ রিপোর্ট :: যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ২১ ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

সোমবার দিনগত রাত ১টা ২৫ মিনিটে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের ৬০ জন নেতাকে নিয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দেন তিনি। এ সময় ১ মিনিট নীরবতা পালন ও শহীদদের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন বিএনপির চেয়ারপারসন।

এর আগে, রাত ১২ টা ৫০ মিনিটে গুলশান কার্যালয় থেকে দলের নেতাদের নিয়ে শহীদ মিনারের উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। কর্তৃপক্ষের বেঁধে দেওয়া শর্ত অনুযায়ী মোট ৯টি গাড়িতে ৬০ জন রাজনৈতিক সহকর্মী নিয়ে শিক্ষা ভবন, হাইকোর্ট মাজার ও কার্জন হল মোড় অতিক্রম করে দোয়েল চত্বর দিয়ে কেন্দ্রীয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাওয়ার সুযোগ পান খালেদা জিয়া।

এই গাড়িগুলোর নম্বর আগেই কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেওয়া হয়েছিল। গাড়ির নম্বর চেক করে গুনে গুনে ৯টি গাড়ি ব্যারিকেড অতিক্রমের অনুমতি দেয় পুলিশ। এরমধ্যে খালেদা জিয়ার গাড়িতে দলের ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান ও খালেদার বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস ছিলেন।

৫২ আসনের বড় একটি বাসে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ৬০ জন নেতা ছিলেন। প্রেস উইংয়ের দুই কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান ও শামসুদ্দিন দিদারও ছিলেন এই বাসে। বাকি ৭টি গাড়িতে ছিলেন খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বাহিনীর (সিএসএফ) কর্মকর্তা, সদস্য এবং অফিস স্টাফ। শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানোর পর রাত পৌনে ২টায় বাসার উদ্দেশে রওনা দেন বিএনপির চেয়ারপারসন।

রাষ্ট্রীয় প্রোটোকল অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, প্রধান বিচারপতি, কূটনীতিক কোরের ডিন, কূটনৈতিক ও মিশন প্রধান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, ক্ষমতাসীন দলের প্রধানের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে রাত দেড়টায় শহীদ মিনারে ফুল দেওয়ার সুযোগ পান খালেদা জিয়া।

ফুল দেওয়ার পর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলনে শহীদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ম্যাডামের সঙ্গে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসেছি। আজকের এই দিনে আমাদের একটাই দাবি, সর্বস্তরে বাংলা ভাষা প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

Leave a Reply