‘হুমায়ূনকে ভুলভাবে উপস্থাপন কোনো ভাবেই মানা যায় না’: শাওন


'হুমায়ূনকে ভুলভাবে উপস্থাপন কোনো ভাবেই মানা যায় না' Meher Afroz Shaon

আইনিউজ১৬ রিপোর্ট :: চলচ্চিত্র অঙ্গনে এখন সবচেয়ে আলোচিত বিষয় মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ‘ডুব’ ছবিটি। এটি প্রয়াত জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে।

আর এই বিষয়টিতে আপত্তি তুলে হুমায়ূনপত্নী মেহের আফরোজ শাওন ছবিটির ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সেন্সর বোর্ডে চিঠি দেন। এরপর তথ্য মন্ত্রণালয়ের আদেশে ‘ডুব’ এর ছাড়পত্রের বিষয়টি সাময়িক স্থগিত করা হয়।

থেকেই বিষয়টি নিয়ে ছবিটির পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও মেহের আফরোজ শাওনের নানা বক্তব্য নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ পরিবেশন হতে থাকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মেহের আফরোজ শাওন আজ রোববার দুপুরে তার ধানমন্ডির বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে শাওন বলেন, ‘এই ছবিটিতে হুমায়ূন আহমেদের জীবনের কিছু স্পর্শকাতর বিষয় তুলে ধরা হয়েছে বলে আমি জেনেছি’। আমি প্রথমে বিষয়টি জানতে পারি বাংলাদেশ-ভারতের প্রথম সারির কিছু গণমাধ্যমে হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে ডুব ছবিটি নির্মিত হয়েছে এমন খবর পড়ে। তারপর আমি বিস্মিত হই!

আরও বিস্মিত হই মোস্তফা সরয়ার ফারুকী এদেশের একজন নামকরা নির্মাতা। তিনি চলচ্চিত্র বানাচ্ছেন ভালো কথা। কিন্তু যাকে নিয়ে ছবি বানানো হলো, তার পরিবারের অনুমতি না নিয়ে বানালেন এটা হবে কেন? আমার আপত্তি হচ্ছে, ছবিতে হুমায়ূন আহমেদের উপস্থাপন নিয়ে। আর তাই ছবিটি সেন্সর প্রিভিউ কমিটিতে জমা পড়লে আমি চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডকে একটি লিখিত চিঠি দেই, এটি হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে নির্মিত কি না কনফার্ম হওয়ার জন্য।

চিঠিতে কোথাও অভিযোগের কিছু বলিনি। কারণ কোনো নির্মাতা বা নির্মাণের সঙ্গে আমার কোনো বিরোধ নেই। তবে হুমায়ূনের স্ত্রী হিসেবে এবং ভক্ত-পাঠক হিসেবে হুমায়ূনকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা কোনো চলচ্চিত্রের পক্ষে আমার অবস্থান থাকবে না এটাই স্বাভাবিক।’

তিনি আরো বলেন, হুমায়ূন আহমেদ বাংলা সাহিত্যের একজন কিংবদন্তি লেখক। তিনি আমাদের মাঝে নেই, কিন্তু তার মানে কি তাকে নিয়ে মনগড়া একটি কাহিনিচিত্র বানিয়ে ফেলা যাবে! ছবির চরিত্র যদি হয় বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় লেখক, যিনি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন- সংসার জীবনে তার দুটি অধ্যায় আছে এবং ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে যার জীবনাবসান হয়েছে।

তাহলে সেটি কার জীবনেই গল্প? দেখুন চলচ্চিত্র একটি শক্তিশালী মাধ্যম। দর্শকের মধ্যে অনেক হুমায়ূন ভক্ত আছেন। নতুন প্রজন্মের এমন অনেক পাঠক আছেন যারা হুমায়ূন আহমেদের বই পড়া শুরু করেছেন মাত্র। তারা ছবিটি দেখে ভুল তথ্য পাবেন। আমার দুটি সন্তান আছে। তাদেরও ভবিষ্যৎ আছে। বিভ্রান্তিমূলক তথ্যের মধ্যে তারা কেন বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়বে?

এসব বিবেচনায় হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র মুক্তির ব্যাপারে আমার আশঙ্কা করার যথেষ্ট কারণ আছে। আর তার পরিপ্রেক্ষিতেই সেন্সর বোর্ডে আমার চিঠি দেওয়া। এখন বাকি বিষয়টি তারাই ভালো বুঝবেন।

উল্লেখ্য, আসছে পহেলা বৈশাখে ‘ডুব’ ছবিটি মুক্তির লক্ষে গত ১২ ফেব্রুয়ারি সেন্সর প্রিভিউ কমিটিতে জমা দেয়া হয়। এতে হুমায়ূম চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ইরফান খান। যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত এ ছবিতে আরো অভিনয় করেন তিশা, পার্নো মিত্র ও রোকেয়া প্রাচী।

Leave a Reply